News

College Exam: কলেজের পরীক্ষা এখন হোম সেন্টারেই নেওয়া হবে, NEP মেনে সিদ্ধান্ত রাজ্যের

এবার থেকে বাইরের কলেজে পরীক্ষা দিতে হবে না রাজ্যের কলেজ পড়ুয়াদের। নিজের কলেজেই পরীক্ষার ব্যবস্থা করবে রাজ্যের কলেজগুলি।

College Exam: জাতীয় শিক্ষানীতি (NEP 2020) সারাদেশে কার্যকর করা হয়েছে। এই শিক্ষানীতি দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় বড় ধরনের পরিবর্তন এনেছে। অন্যান্য রাজ্যগুলি যখন জাতীয় শিক্ষা নীতি অনুসরণ করছে, তখন বাংলা তার নিজস্ব রাজ্য শিক্ষা নীতি গ্রহণ করেছে। এ প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষায় যাতে কোনো বাধা না পড়ে সে জন্য রাজ্য সব ধরনের পদক্ষেপ নেবে। সূত্র অনুযায়ী, জাতীয় শিক্ষানীতির পথ অনুসরণ করে নতুন পরীক্ষার নিয়ম আনতে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। যার ফলে এখন থেকে কলেজের শিক্ষার্থীরা হোম সেন্টারেই পরীক্ষা দিতে পারবে।

সূত্রের খবর, জাতীয় শিক্ষানীতির আওতায় প্রথমেই কলেজের হাতে পরীক্ষার দায়িত্ব ছেড়ে দিতে চলেছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। যার ফলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা নিজ নিজ কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে পারবে। কলেজের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র কলেজ নিজেই প্রস্তুত করবে। পরীক্ষার পর খাতা মূল্যায়ন করবেন সংশ্লিষ্ট কলেজের শিক্ষকরা। এ খবর প্রকাশ্যে আসার পর বিশেষজ্ঞ মহলে আলোচনা শুরু হয়েছে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, নিজ কলেজের শিক্ষকরা যদি তাদের শিক্ষার্থীদের খাতা মূল্যায়ন করেন, তাহলে সেই মূল্যায়ন কতটা ন্যায্য হবে তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। কারণ, কোভিডের সময় কলেজগুলির হাতে মূল্যায়নের বোঝা থাকায়, শিক্ষার্থীদের অসম নম্বরের মুখোমুখি হতে হয়েছিল। কোনো কোনো কলেজের একই প্রশ্নপত্রে অনেক বেশি নম্বর পেলেও কোনো কোনো স্থানে কম নম্বর পাওয়ায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়েছিল। স্নাতকোত্তর ভর্তিতেও তার প্রভাব পড়েছিল।

অন্যদিকে, জাতীয় শিক্ষানীতির সাথে সামঞ্জস্য রেখে, রাজ্যে চার বছরের স্নাতক কোর্স এবং তিন বছর মেয়াদী মাল্টি ডিসিপ্লিনারি কোর্স চালু করা হয়েছে। এ কারণে পড়ানো ইন্টার ডিসিপ্লিনারি কোর্সের পরীক্ষার খসড়া বিধিমালা বিতরণ করা হয়েছে। বিধিমালায় বলা হয়েছে, পরীক্ষার সব দায়িত্ব কলেজের ওপর ছেড়ে দেবে বিশ্ববিদ্যালয়। ১৫০ টিরও বেশি কলেজের প্রথম সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদের জন্য পরীক্ষার খসড়া নিয়ম তৈরি করেছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। অর্থাৎ এ বার থেকে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কলেজগুলিতে নতুন পরীক্ষা পদ্ধতি চালু হচ্ছে। এই নিয়মে শিক্ষকদের দায়িত্ব বেড়ে গেল। অন্যদিকে শিক্ষার্থীরা কিছুটা হলেও খুশি।

Join Telegram groupJoin Now
Join WhatsApp ChannelJoin Now

Related Articles

Back to top button