Recruitment News

SSC: ‘অযোগ্যদের চাকরি বাতিল করে এক মিনিটের মধ্যে সমস্যা সমাধান করা সম্ভব’, এসএসসি নিয়োগ সংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে আইনজীবীর মন্তব্য

স্কুল সার্ভিস কমিশন অযোগ্য দের চাকরি বাঁচাতে কোর্টে লড়ছে।

SSC: স্কুল সার্ভিস কমিশন (এসএসসি) অযোগ্যদের চাকরি বাঁচাতে আদালতে লড়ছে, অ্যাডভোকেট ফিরদৌস শামীম এই মন্তব্য করলেন। শিক্ষামন্ত্রী থেকে শুরু করে ক্ষমতাসীন দলের মুখপাত্রদের মধ্যে চাকরিপ্রার্থীদের চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে আইনি জটিলতার কথা বারবার সামনে এসেছে। এ প্রসঙ্গে ফেরদৌস শামীমের বক্তব্য, আদালতকে অজুহাত করতে চায় ক্ষমতাসীন দল। করা চাকরি বিক্রি করেছে তা নাকি সকলেই জানে।

তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষের মধ্যস্থতা প্রসঙ্গে ফিরদৌস শামীম প্রশ্ন তোলেন যে, যোগ্য ব্যক্তিদের চাকরি পেতে মামলা করতে হবে কেন? ফেরদৌস শামীমের প্রশ্ন, ‘নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সরকারের কেউ নয়, সরকারে কোনো ভূমিকা নেই, তারপরও সরকারি নিয়োগে কেউ কীভাবে মিডলম্যানের ভূমিকা নিতে পারে? নিয়োগ প্রক্রিয়ায় একজন মিডলম্যান ভূমিকা নিচ্ছে, ভাবা যায়?’

ফিরদৌস শামীম বলেন, “যোগ্য চাকরি প্রার্থীরা মামলা করেছেন। আমরা আইনজীবী হিসাবে তাঁদের হয়ে সওয়াল করেছি মাত্র। কোনও আইনজীবী মামলাকারী নন। বরং বলুন কেন এরা আদালতে এল? এদের তো আদালতে আসারই দরকার হতো না যদি ন্যায্য বিচার পেত। যোগ্যদের যদি নিয়োগ দেওয়া হত, তাহলে তো এরা আদালতেও যেত না, ধরনা মঞ্চেও বসত না। এরা বঞ্চিত হয়েছে বলেই তো এসেছে। আর এদের সমস্যা এক মিনিটে সমাধান সম্ভব। যদি অযোগ্য চাকরি প্রাপকদের চাকরি থেকে বাতিল করে দিয়ে যোগ্যদের ক্রম অনুযায়ী মেধা অনুযায়ী চাকরি দেওয়া হয়। মেধা তালিকা তো আছেই।”

তিনি আরো বলেন “যতক্ষণ অযোগ্যদের না বের করে দিচ্ছেন এই সমস্যার সমাধান হবে না। কিন্তু সরকার এখনও বলে যাচ্ছে একজনেরও চাকরি বাতিল হবে না। যোগ্যদের চাকরি দিতে কোনও চেষ্টাই নেই। বরং অযোগ্য চাকরি প্রাপকদের চাকরি বাঁচাতে মরিয়া সরকার। স্কুল সার্ভিস কমিশনের দায়িত্ব স্বচ্ছতার সঙ্গে নিয়োগ দেওয়া। তারাই এসে আদালতে হলফনামা দিয়ে বলছে, অতিরিক্ত শূন্যপদ ব্যবহৃত হবে অযোগ্য চাকরি প্রাপকদের চাকরি বাঁচানোর জন্য। এটা স্বপ্নেও কখনও ভাবা যায়?”

Join Telegram groupJoin Now
Join WhatsApp ChannelJoin Now

Related Articles

Back to top button